সৈয়দপুরে নিয়োগের নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক প্রতারক আটক – North Bengal News

সৈয়দপুরে নিয়োগের নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক প্রতারক আটক

জাহিদুল হাসান জাহিদ। নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে মীর আকতার কোম্পানীতে চারশত লোক নিয়োগে হবে এই প্রলোভন দিয়ে টাকা নেওযার অভিযোগে মো.ফুলচান প্রামানিক নামের এক ব্যক্তিতে পুলিশ আটক করেছে। আটক ফুলচান কষ্টাপাড়া গোবিন্দাস ভূয়াপুর টাংগাইলের মৃত মকরম আলীর ছেলে।

সোমবার(২৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৯ টায় নীচুকলোনী থেকে গোয়েন্দা পুলিশ তাকে আটক করে।

জানা যায, মীর আকতার কোম্পানী সৈয়দপুর বিমানবন্দর নির্মাণ কাজ পেয়েছে । এই কাজের জন্য চার শতজন শ্রমিক নিয়োগ করা হবে। মীর সাহেব ফুলচানকে দায়িত্ব দিয়ে সৈয়দপুরে পাঠিয়েছে। ফুলচান কোম্পানীর নিয়োগ প্রাপ্ত ফরম্যান বলে নিজেকে দাবী করে। তবে সে কোম্পানীর নিয়োগপত্র বা কোন প্রমাণ দেখাতে পারেনি। ফুলচানের বিরুদ্ধে  মীর আকতার কোম্পানীর নাম ভেঙ্গে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে নিয়োগের নামে বায়োডাটা ও টাকা হাতিয়ে নেওয়ার তথ্য পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশ তাকে আটক করে।

এসময় ফুলচান মোবাইলে কথিত মীর সাহেবের সঙ্গে যোগাযোগ করলে সে মোবাইল বন্ধ করে দেয়।

ফুলচান নিয়োগের কথা বলে, টাংগাইল সদরের মৃত শহিদুলের ছেলে নবাগত প্রকৌশলী রাইসূ ইসলামকে সাইট ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগের কথা বলে সৈয়দপুরে এনে তার কাছ থেকে কোম্পানীর সিকিউরিটির নামে ছয় হাজার টাকা নিয়েছে।

গাইবান্দার গলনার চড় ফুলছড়ির কসিম উদ্দিনের ছেলে আজাদুল ইসলামের নিকট থেকে দু্ হাজার টাকা ফুলচান জমা নিয়েছে।

গাইবান্দার পূর্ব ইদাখালির আলম মিয়ার ছেলে সাদেক আলীকে দিয়ে চারশত লোককে পাক করার কথা বলে ৫৬৪০ টাকার পাতিল,কড়াই,বালতি,প্লেট গ্লাস আনতে বলে। সে গাইবান্দা থেকে বাকীতে  ঔসব সামগ্রী ক্রয় করে সৈয়দপুরে নিয়ে আসে।

ভুক্তভোগিরা জানান,নিয়োগের কথা বলে তাদের দশ দিন ধরে সৈয়দপুরে এনে রেখেছে।যে কোম্পানীর কথা বলে তাদের আনা হয়েছে,সেই কোম্পানীর কোন হদিস পায়নি তারা। বসে বসে খেয়ে তাদের পকেটের জমা টাকাও শেষ হয়েগেছে। ফুলচান বিশজনের কাছে থেকে বায়োডাটা সংগ্রহ করেছে এবং প্রত্যেকের কাছে পাচঁ হাজার টাকার শর্তে নিয়োগের কথা বলেছে। এছাড়া ফুলচান দিনাজপুরে আরো পঞ্চাশ জনের সঙ্গে এই শর্তে কথা বলেছে বলে তারা বলেন।

এব্যাপারে, সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত  ইনচার্জ ওসি সাইফুল ইসলাম জানান,ফুলচান নামে একজন ব্যক্তিকে আটক রাখা হয়েছে। তবে তার ব্যাপারে কেউ কোন লিখিত অভিযোগ করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.