Published: October 16, 2019

সৈয়দপুরের গর্ব জাকিয়া চান্স পলো মেডিকেলে


ডেস্ক রিপোর্ট-চলতি বছরের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে মেডিকেলে ভর্তির মেধাতালিকায় স্থান করে নিয়েছেন নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলা শহরের কয়ানিজপাড়া মহল্লার রাজমিস্ত্রি জাকারিয়ার মেয়ে জাকিয়া সুলতানা। মেধা তালিকায় তিনি বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। মঙ্গলবার মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। ফল প্রকাশের পর তার এ কৃতিত্বের খবরে শহরজুড়ে আনন্দ ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা যায়, নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা শহরের কয়ানিজপাড়া এলাকার রাজমিস্ত্রি জাকারিয়া ও মোছা: শহিদা বেগম দম্পতির তিন মেয়ে ও এক ছেলে। বাবা জাকারিয়া রাজমিস্ত্রির কাজ করে কোনো রকমে সংসার চালালেও ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার ক্ষেত্রে ছিলেন খুবই মনোযোগী। একারণে শত কষ্টের মধ্যেও তিনি সন্তানদের শিক্ষা কার্যক্রমে কোনোরকম ব্যাঘাত ঘটতে দেননি। বাবার এরকম মানসিকতা আর মায়ের যত্নে সন্তানরাও লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করায় সাফল্যের সাথে উত্তীর্ণ হয় প্রতিটি ক্লাসে।

জাকিয়া সুলতানার বড় বোন জয়নাব আরা স্মৃতি ঢাকা নার্সিং কলেজে পড়ছেন। দ্বিতীয় সন্তান জাকিয়া সুলতানা সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী মহাবিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে চলতি বছর সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। এরপর তৃতীয় সন্তান জিহাদ নাহার ঋতু সৈয়দপুর সরকারি মহাবিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত। ছোট ভাই আব্দুল্লাহ প্রামাণিক স্মরণ শিশু শ্রেণির ছাত্র।

এদিকে জাকিয়া তার এই কৃতিত্বের জন্য বাবা-মাসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও সৈয়দপুরের মেডিকেল ভর্তি কোচিং সেন্টার ‘বিট’স্ এর পরিচালক আব্দুল হাফিজ হাপ্পুর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

রাজমিস্ত্রির মেয়ে মেডিকেলে চান্স পাওয়ার খবরে শহরের বিভিন্ন প্রান্তের লোকজন ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা জাকিয়াকে দেখতে তার বাড়িতে আসছেন এবং তার ভবিষ্যৎ সাফল্য কামনায় দোয়া করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *